শেখ জামাল তরুণ প্রজন্মের জন্য অনুপ্রেরণার বাতিঘর: ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী

11
Smiley face

যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল বলেছেন, ‘জাতির পিতার দ্বিতীয় পুত্র বীর মুক্তিযোদ্ধা লেফটেন্যান্ট শেখ জামাল তরুণ প্রজন্মের জন্য সতত অনুপ্রেরণার এক অনিঃশেষ উৎস। বহুমাত্রিক প্রতিভার অধিকারী শেখ জামাল হতে পারে বর্তমান প্রজন্মের জন্য অনুকরণীয় অনুসরণীয় দৃষ্টান্ত।’

তিনি বুধবার দুপুরে শেখ জামালের ৬৮ তম জন্মদিন উপলক্ষে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় কর্তৃক ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘শেখ জামাল শুধু সেনাবাহিনীর একজন মেধাবী ও চৌকস অফিসারই ছিলেন না, একজন প্রকৃত দেশপ্রেমিক বীর মুক্তিযোদ্ধাও ছিলেন। মহান মুক্তিযুদ্ধে তিনি অনন্য অবদান রেখেছিলেন। সংস্কৃতি ও ক্রীড়া ক্ষেত্রে রয়েছে তাঁর অনবদ্য ভূমিকা। প্রকৃতপক্ষে, বঙ্গবন্ধুর পরিবারের প্রতিটি সদস্যই দেশের ক্রীড়াঙ্গনে একেকটি আলোকবর্তিকা।

‘স্বাধীনতার পর দেশের ক্রীড়াঙ্গনকে এগিয়ে নিতে শহীদ শেখ জামালের অবদানও সূর্যের আলোর মতোই দীপ্যমান। আমাদের তরুণ প্রজন্মকে তার কর্মময় জীবন ও আদর্শ থেকে শিক্ষা নিতে হবে এবং তার রেখে যাওয়া অসমাপ্ত কাজ বাস্তবায়নের মাধ্যমে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণ করতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘ক্রীড়া ক্ষেত্রে শহীদ শেখ জামালের অবদানকে চিরস্মরণীয় করে রাখার মানসে আমরা জাতীয় টেনিস কমপ্লেক্সকে শেখ জামালের নামে নামকরণ করার সিদ্ধান্ত গ্রহন করেছি। তিনি শুধু ফুটবল ক্রিকেট নয়, ভালো টেনিস খেলোয়াড়ও ছিলেন।’

প্রতিমন্ত্রী এ সময়ে পাকিস্তানি দোসর বিএনপি জামায়াত চক্ররা মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ও জাতির পিতার পরিবারের সদস্যদের প্রকৃত অবদানকে বিকৃত করার অপচেষ্টা চালিয়েছিল বলেও উল্লেখ করেন।

যুব ও ক্রীড়া সচিব মো: আখতার হোসেনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে প্রদান করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক মোঃ হারুনুর রশীদ ও শেখ কামালের ঘনিষ্ঠ সহচর স্বাধীন বাংলা ফুটবল দলের ম্যানেজার বিশিষ্ট ক্রীড়া সংগঠক তানভীর মাজহার ইসলাম তান্না।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ ও বিভিন্ন দপ্তর সংস্থার প্রধানগণ।

উল্লেখ্য, শহীদ শেখ জামালের ৬৮তম জন্মদিন উদযাপনে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় দিনব্যাপী নানা কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে। এছাড়াও বিকালে প্রস্তাবিত জামাল জাতীয় টেনিস কমপ্লেক্সে গরীব অসহায় দুস্থদের মধ্যে ইফতার সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।


Smiley face