নারীদের ফেসবুক হ্যাক করে টাকা আদায় করতেন তিনি

25
Smiley face

আজ বুধবার ঢাকা মহানগর পুলিশের মিডিয়া সেন্টারে এ নিয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ডিবির অতিরিক্ত কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার এসব তথ্য জানান। সুনামগঞ্জের দোয়ারবাজার এলাকা থেকে গত সোমবার দিবাগত রাত একটার দিকে মামুনকে গ্রেপ্তার করে ঢাকায় নিয়ে আসা হয়। তাঁর মুঠোফোনটিও জব্দ করা হয়েছে।

এ কে এম হাফিজ আক্তার বলেন, মামুন মূলত নারীদের টার্গেট করতেন। কারণ, তাঁদের কাছ থেকে টাকা আদায় করা সহজ বলে তিনি মনে করতেন। মামুন মিয়া প্রযুক্তি সম্পর্কে পারদর্শী। তিনি ফিশিং লিংক তৈরি করে বিভিন্ন ব্যক্তির ফেসবুক মেসেঞ্জারে পাঠাতেন। ওই ফিশিং লিংকটি আগ্রহীরা ক্লিক করলে ফেসবুক ইন্টারফেস আসত। তখন সেই লিংকে প্রবেশের জন্য ব্যবহারকারীর ফেসবুক পাসওয়ার্ড দিলে হ্যাকারের কাছে ওই আইডির পাসওয়ার্ড চলে যেত।

এভাবে মামুন মিয়া ফেসবুক আইডি তাঁর দখলে নিয়ে মোটা অঙ্কের টাকা দাবি করতেন। হাফিজ আক্তার বলেন, মামুন টাকার বিনিময়ে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ফেরত দিতেন। অন্যথায় ফেসবুক অ্যাকাউন্ট দখল নিতেন।

মামুনের নামে ফেসবুক হ্যাক করার অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা হয়েছিল আরও আগে। আজ তাঁকে আদালতে পাঠিয়ে রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে।


Smiley face