কলকাতা এখন বিশ্বের সবচেয়ে দূষিত শহরের তালিকায়

30
Smiley face

দূষণের জেরবার দিল্লি। পরিস্থিতি দেখে পরিবেশবিদদের অনেকেই ১৯৫২ সালের লন্ডনের গ্যাস চেম্বার পরিস্থিতির সঙ্গে তুলনা টানছেন। দূষণ নিয়ন্ত্রণে লকডাউনের পরামর্শ দিচ্ছে সুপ্রিম কোর্ট।

রাজধানীর দূষণ নিয়ে জরুরি বৈঠকে করেছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। এই পরিস্থিতিতেই জানা গেল, বিশ্বের সবচেয়ে দূষিত শহরগুলির মধ্যে দিল্লি তো রয়েইছে, রয়েছে ভারতের আরও দুটি শহর। যার একটি বাংলার রাজধানী কলকাতা।

সমীক্ষার মাধ্যমে বিশ্বের দূষিত শহরগুলিকে চিহ্নিত করার কাজ করে সুইজারল্যান্ডের সংস্থা আইকিউএয়ার। তারাই সম্প্রতি বিশ্বের সবচেয়ে দূষিত ১০টি শহরের তালিকা প্রকাশ করেছে।

সেই তালিকাতেই রয়েছে ভারতের তিনটি শহর। তালিকার একেবারে শীর্ষে রয়েছে দিল্লি। দীপাবলির পর থেকেই যেখানে দূষণের মান মাত্রাছাড়া পর্যায়ে পৌঁছেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দিল্লির বায়ুর মান সূচক বিপজ্জনক ৫৫৬-এ পৌঁছে গিয়েছে।

বিশ্বের দ্বিতীয় দূষিত শহর হিসেবে পাকিস্তানের লাহোরের নাম উঠে এসেছে। সেখানে বায়ু সূচকের মান ৩৫৪। বিগত কয়েক দশক ধরে লাহোরের দূষণ নিয়ে জেরবার সেখানকার প্রশাসন।

তৃতীয় স্থানে রয়েছে বুলগেরিয়ার সোফিয়া। এই শহরে বায়ুর মান সূচক ১৭৮। সুইৎজারল্যান্ডের সংস্থাটির সমীক্ষা অনুযায়ী এটিই ইউরোপের সবচেয়ে দূষিত শহর। চতুর্থ দূষিত শহর হল কলকাতা।

দূষণ নিয়ন্ত্রণ নিয়ে কাজ করা সংস্থাটি জানিয়েছে, দিল্লির মতো না হলেও কলকাতার পরিস্থিতিও উদ্বেগজনক। এই শহরের বায়ুর মান সূচক হল ১৭৭। যার অন্যতম কারণ অত্যাধিক কলকারখানা ও যানবাহন।

সুইস সংস্থার সমীক্ষা অনুযায়ী, ক্রোয়েশিয়ার রাজধানী জাগ্রেব পঞ্চম দূষিত শহর। এই শহরের বায়ুর মান সূচক ১৭৩। এরপর ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে ভারতের মুম্বাই। কলকাতার মতোই ঘিঞ্জি মুম্বাই শহরের অত্যাধিক দূষণের অন্যতম কারণ যানবাহন। এই শহরের বায়ুর মান সূচক ১৬৯।

সপ্তম, অষ্টম, নবম ও দশম স্থানে রয়েছে যথাক্রমে সার্বিয়ার বেলগ্রেড (বায়ুর মান সূচক ১৬৫) , চিনের চেঙ্গুদ (বায়ুর মান সূচক ১৬৫), উত্তর ম্যাসিডোনিয়ার স্কপজে (বায়ুর মান সূচক ১৬৪) ও পোল্যান্ডের ক্রাকো (বায়ুর মান সূচক ১৬০)।


Smiley face