কাটাখালীর মেয়র আব্বাস আলী গ্রেপ্তার

180
Smiley face

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল স্থাপন নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের পর রাজশাহীর কাটাখালী পৌরসভার মেয়র আব্বাস আলীকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব।

বুধবার (১ ডিসেম্বর) সকালে রাজধানীর কাকরাইলের ঈশা খাঁ হোটেল থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

র‍্যাব সদর দফতরের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, র‍্যাব সদর দফতরের গোয়েন্দা শাখা তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় জানতে পারে মেয়র আব্বাস আলী রাজধানীর কাকরাইলের হোটেল ঈশা খাঁতে অবস্থান করছেন। এরপর মঙ্গলবার মধ্যরাত থেকে হোটেলটি ঘিরে রাখে র‍্যাবের একটি দল। পরে সকালে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

২০২০ সালের ডিসেম্বরে নৌকা প্রতীক নিয়ে দ্বিতীয় মেয়াদে কাটাখালীর মেয়র নির্বাচিত হন আব্বাস আলী। ম্যুরাল নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে ২৪ নভেম্বর দলীয় পদ থেকে মেয়র আব্বাসকে অপসারণের সিদ্ধান্ত নেয় পবা উপজেলা আওয়ামী লীগ। ২৬ নভেম্বর তাকে জেলা আওয়ামী লীগের নির্বাহী সদস্য পদ থেকে অব্যাহতি দেয় রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগ।

গত ২২ নভেম্বর রাতে মেয়র আব্বাস আলীর ১ মিনিট ৫১ সেকেন্ডের একটি অডিও ক্লিপ নেট দুনিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। এতে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল বানালে ‘পাপ হবে’ এমন কথা বলতে শোনা গেছে মেয়র আব্বাস আলীকে।।

আরেকটি অডিওতে রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের সমালোচনাও করা হয় বলে অভিযোগ।

ঘরোয়া বৈঠকের ওই কথোপকথনে অশ্লীল ভাষায় গালাগালও রয়েছে। এ দুটি অডিও ছড়িয়ে পড়ার পর রাজশাহীতে তোলপাড় শুরু হয়।

এরপর মেয়র আব্বাসের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে রাজশাহী মহানগরীর বোয়ালিয়া থানায় মামলা হয়। এরপর থেকেই গ্রেপ্তার এড়াতে আত্মগোপনে চলে যান তিনি।


Smiley face