করোনামুক্ত ঘোষণার পরের দিনই মারা গেলেন মনসুর

89
Smiley face

দ্বিতীয়বার নমুনা পরীক্ষা না করেই করোনামুক্ত ঘোষণা করার পরের দিনই মারা গেলেন মনসুর রহমান নামে একজন।

অনুমতি দেয়া হয়েছিলো বাড়ির লকডাউন খুলে দেওয়া ও বাড়ির বাইরে যাওয়ার। এর পরদিনই ওই ব্যক্তি নিজ বাড়িতে মারা গেছেন।
মারা যাওয়া মনসুর রহমান (৩০) বাড়ি চারঘাটের ঝিকড়া গ্রামে। আজ সোমবার (২২ জুন) সকালে নিজ বাড়িতেই মারা গেছেন তিনি। আগের দিন (২১ জুন) উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ তাকে করোনামুক্ত ঘোষণা দিয়ে বাড়ি থেকে বের হওয়ার অনুমতি দিয়েছিল। অথচ দ্বিতীয়বার তার নমুনায় পরীক্ষা করা হয়নি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সৈয়দা সামিরা বলেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা আছে কারও শরীরে যদি করোনার উপসর্গ না থাকে তবে একটা নির্দিষ্ট সময় পর তাকে করোনামুক্ত বলা যাবে। সে অনুযায়ী রোববার চিকিৎসকরা মনসুরকে বলেছিলেন, চাইলে তিনি এখন বাড়ি থেকে বের হতে পারবেন।
এর আগে গত ৬ জুন রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নমুনা পরীক্ষায় মনসুরের করোনা শনাক্ত হয়।

মৃত্যুর আগে মনসুর বলেছিলেন, তিনি পাবনার রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের গাড়িচালক হিসেবে কাজ করেন। ঈদের ছুটিতে বাড়ি এসেছিলেন। এখন বিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে বলা হয়েছে, সেখানে ঢুকতে হলে করোনা নেগেটিভ সনদ নিয়ে আসতে হবে। সে জন্যই তিনি নমুনা দিয়েছিলেন পরীক্ষার জন্য। এতেই তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। তবে তার কোনো উপসর্গ নেই।
চারঘাটের ইউএনও সৈয়দা সামিরা বলেন, মনসুর রহমান হৃদরোগে ভুগতেন। সে কারণেই তার মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। তবে যেহেতু করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছিল তাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে লাশ দাফন করতে বলা হয়েছে।


Smiley face